আজ ১৪ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৮শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সাতক্ষীরা পৌরসভা নির্বাচনে কাউন্সিলর প্রার্থী ফিরোজের পক্ষে কাজ করায় প্রতিপক্ষের হামলায় আহত-২

আসন্ন সাতক্ষীরা পৌরসভা নির্বাচনে ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী কাজী ফিরোজ হাসানের পক্ষে কাজ করায় বড় বাজার কাঁচা ও পাকা মাল ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহিম বাবুকে হুমকি, দোকানে হামলা ও বাঁধা দেওয়ায় ২জনকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে জখমের ঘটনা ঘটেছে। রোববার রাত ৯ টার দিকে শহরের সুলতানপুর বড় বাজারে এঘটনা ঘটে। এতে গুরুত্বর আহত হয়ে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন চা বিক্রেতা কাশেম ও তরকারি ব্যবসায়ী কাফিরুল।
বড় বাজার কাঁচা ও পাকা মাল ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহিম বাবু বলেন, রোববার সন্ধ্যা ৬টার দিকে সুলতানপুর রোম টেইলার্স এর পাশে দাঁড়িয়ে আমি ও খোকন কথা বলছিলাম। এসময় পিছন থেকে এসে সুলতানপুর এলাকার মৃত সবুরের ছেলে মিলন ও মৃত মধুর ছেলে বাবু আমাকে হুমকি ধামকি দেয় এবং প্রকাশ্যে বলে, কাজী ফিরোজ হাসানের পক্ষে কাজ করলে তোর খবর আছে। পরে জানা যায়, তারা একই ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী আসাদ আহমেদ অঞ্জুর লোক।
এঘটনার পর রাত ৯টার দিকে সুলতানপুর বড় বাজারে আব্দুর রহিম বাবুর ব্যবসা প্রতিষ্ঠান মেসার্স মল্লিক ভান্ডারে আসাদ আহমেদ অঞ্জু, তার ভাই রঞ্জু ও একই গ্রামের বেলালসহ কয়েকজন অতর্কিতভাবে আমার দোকানে ঢুকে হট্রগোল শুরু করে আমাকে হুমকি ও মারধর করতে যায়। এসময় কাশেম ও কাফিরুন তাদের বাঁধা দেয়। খবর পেয়ে সদর থানা পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
এরপর ঘটনাস্থল থেকে বাড়ি ফেরার পথে বেলালের নেতৃত্বে আতর আলীর ছেলে কাশেম ও করিম সরদারের ছেলে কাফিরুনকে বেধরক মারধর করে। এক পর্যায়ে তারা কাশেমের মাথায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। বর্তমানে তারা সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। আহত কাশেমের অবস্থা গুরুত্বর বলে জানা যায়। এ ব্যাপারে সাতক্ষীরা সদর থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর