আজ ৩০শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৩ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

‘বুক রোড খুলনা’ দক্ষিণ এশিয়ায় এই প্রথম ব্যতিক্রমী উদ্যোগ, থাকছে বিনামূল্যে বই

শাহিনুর ইসলাম: বইয়ের অভাবে আর যেন বন্ধ না হয় কোন মেধাবীর ছাত্রের জীবন এবং বই পড়তে সকলকে উদ্বুদ্ধ করতে “Entertainment All In One Group” এবং “Book Bank“ গ্রুপ এর উদ্যোগে দক্ষিণ এশিয়ায় এই প্রথম বাংলাদেশের খুলনাতে প্রথমবারের মতো আয়োজন করা হচ্ছে ‘বুক রোড খুলনা ২০২১’ নামের একটি ভিন্নধর্মী ইভেন্ট। যা বাস্তবায়ন করছে খুলনায় একঝাক তরুণ তরুণী।

 বুক রোড খুলনার প্রধান উদ্যোগতা মো. রিয়াদ আহমেদের কাছে  ‘বুক রোড খুলনা’  এর কার্যক্রম সম্পর্কে জানতে চাওয়া হলে তিনি ‘জনতার মিছিল ’কে বলেন বুকরোড খুলনা আসলে বুক ব্যাংকের একটি অংশ বিশেষ মাত্র, মানুষকে বই পড়াতে উদ্বুদ্ধ করা ও ছাত্র ছাত্রীদের মাঝে বিনামূল্যে একাডেমিক প্রয়োজনীয় বইয়ের যোগান দেওয়া। যেকোন বই নেবার জন্য প্রয়োজন নেই কোন টাকার। আপনার ইচ্ছে হলেই ১,২,৩ কিংবা পাঁচটি বই আপনি নিতে পারেন। আবার আপনার ইচ্ছে হলেই আপনার ঘরের কোণে থাকা, আপনার অব্যবহৃত কিংবা ফেলে রাখা বইটিও বুক ব্যাংকে অথবা বুক ব্যাংক খুলনা ইভেন্টে দিয়ে যেতে পারেন, যেন এই বইটি যার প্রয়োজন সে বেছে নিতে পারে। লাইব্রেরী, ভ্রাম্যমান লাইব্রেরী, বইমেলা যেভাবে মানুষকে বই পড়তে উদ্বুদ্ধ করে, আমাদের এই ভিন্নধর্মী আয়োজন ঠিক কিছুটা ভিন্ন ভাবে মানুষকে উদ্বুদ্ধ করবে আশা রাখছি। কেননা এখানে টাকার বিনিময় কিংবা ফেরত দেবার কোন ঝামেলা নেই।

বুক রোড খুলনার এর অন্যতম সদস্য ফাহিম শাহ বলেন, বর্তমানে আমরা এখন বিভিন্ন জায়গা থেকে যারা তাদের অপ্রয়োজনীয় বইগুলো আমাদের গ্রুপের মাধ্যমে শেয়ার করে অন্য একজনের উপকারের জন্য দিতে চাচ্ছে আমরা সেগুলো আমাদের ভলেন্টিয়ার টিম দিয়ে সংগ্রহ করছি  আমরা আমাদের এই কর্মসূচির মাধ্যমে শহরের বইপ্রেমী মানুষদের বইয়ের চাহিদা কিছুটা হলেও মেটাতে পারব বলে আমরা মনে করি। আমরা আমাদের কর্মসূচিতে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বই যেমন বিভিন্ন ইসলামিক বই, গল্পের বই, উপন্যাস, কবিতা এছাড়াও ছোটদের বই থেকে শুরু করে চাকরির বই পর্যন্ত আমরা কালেক্ট করতেছি ইনশাআল্লাহ আমাদের এই কর্মসূচির মাধ্যমে আমরা ভালো কিছু মানুষকে উপহার দিতে পারব। 

‘বুক রোড খুলনা’ শুধু খুলনাবাসী নয় বরং সারা বাংলাদেশে জন্য এটি একটি প্রশংসনীয় উদ্যোগ বলে মনে করেন নতুন প্রজন্মরা।

নামায ও ইফতারের সময়সূচীঃ

সেহরির শেষ সময় - ভোর ৩:৫৭ পূর্বাহ্ণ
ইফতার শুরু - সন্ধ্যা ৬:৩৯ অপরাহ্ণ
  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৪:০২ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:০২ অপরাহ্ণ
  • ৪:৩৬ অপরাহ্ণ
  • ৬:৩৯ অপরাহ্ণ
  • ৮:০১ অপরাহ্ণ
  • ৫:২২ পূর্বাহ্ণ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর