আজ ১৫ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

দেবহাটায় রাস্তার ওপর ভেঙে পড়ছে মরা গাছ: বাড়ছে দূর্ঘটনা, জনদূর্ভোগ

মাহমুদুল হাসান শাওন: দেবহাটার সখিপুর মোড় থেকে সেকেন্দ্রা পর্যন্ত সাতক্ষীরা কালীগঞ্জ মহাসড়কের দু’পাশে কঙ্কালের মতো দাড়িয়ে রয়েছে বড় বড় মরা রোড শিশু গাছ। সামান্য বাতাস বা ঝড় বৃষ্টিতেই এসব মরা গাছের ডালপালা ভেঙে পড়ছে রাস্তার ওপর। ফলে একসময়ে সৌন্দর্য্য বর্ধন এবং প্রাকৃতিক ভারসম্য রক্ষার জন্য লাগানো গাছ গুলো এখন জনসাধারণের গলার কাটায় পরিণত হয়েছে।
যেকোন মুহুর্তে ডালপালা ভেঙে পড়ে ঘটছে সড়ক দূর্ঘটনা, আহত হচ্ছেন পথচারীরা। পাশাপাশি তীব্র ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে সড়কের দুপাশের দোকানী ও ব্যবসায়ীরা। বিপদের আশঙ্কা মাথায় নিয়ে দিনরাত ব্যস্ততম এ সড়কে যাতায়াত করতে হচ্ছে স্কুল কলেজের কোমলমতি শিক্ষার্থীসহ সর্বস্তরের মানুষকে।
দীর্ঘদিন ধরে উপজেলার সখিপুর মোড়, পারুলিয়া ব্রীজের দক্ষিন পাশে সখিপুর কাঁকড়া সমিতির সামনে ও সেকেন্দ্রা মোড়ে দাড়িয়ে থাকা কঙ্কাল সাদৃশ্য বৃহদাকৃতির এসব মরা রোড শিশু গাছের ডালপালা ভেঙে পড়ে দূর্ঘটনার সংখ্যা ক্রমশ বেড়েই চলেছে। এতে করে তীব্র দূর্ভোগে পড়েছেন সর্বস্তরের মানুষ।
চলমান দূর্ঘটনা ও দূর্ভোগ হ্রাসে এসকল মরা গাছ অবিলম্বে কর্তনের পদক্ষেপ নেয়ার জন্য সাতক্ষীরা সড়ক ও জনপথ বিভাগের পাশাপাশি জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ভুক্তভোগীরা।
এ বিষয়ে সাতক্ষীরা সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মীর নিজাম উদ্দিন আহমেদ বলেন, মরা গাছ গুলোর কারনে দূর্ঘটনা বৃদ্ধি ও দূর্ভোগের বিষয়ে বিভিন্ন সময়ে ভুক্তভোগীরা জানিয়েছে। মুলত গাছগুলি সড়ক ও জনপথ বিভাগের আওতাধীন হলেও সেগুলো অপসারনের জন্য উর্দ্ধত্তন কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত প্রয়োজন। আমরা এপর্যন্ত পাঁচবার চিঠি দিয়ে গাছ গুলি অপসারনের বিষয়ে উপরে জানিয়েছি। কিন্তু এখনও কোন নির্দেশনা পাইনি। আগামীতে আবারো লিখিতভাবে জানাবো। নির্দেশনা পেলেই মরা গাছ গুলি অপসারনের ব্যবস্থা করবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর