আজ ১৪ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৯শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

তৌকীর পরিচালিত ‘স্ফুলিঙ্গ’, করোনাকালেও প্রত্যাশা

বিনোদন ডেস্কঃ জনপ্রিয় অভিনেতা ও নির্মাতা তৌকীর আহমেদ পরিচালিত নতুন সিনেমা ‘স্ফুলিঙ্গ’।  গত শুক্রবার (২৬ মার্চ)  সিনেমাটি ৩৫টি প্রেক্ষাগৃহে একযোগে মুক্তি পেয়েছে। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে এটি মুক্তি পেলেও করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সিনেমা হলে ‘স্ফুলিঙ্গ’ দর্শকদের টেনে আনতে পারবে কিনা তা নিয়ে শঙ্কা রয়েই যায়।

তৌকীর পরিচালিত ‘স্ফুলিঙ্গ’, করোনাকালেও প্রত্যাশা

এ বিষয়ে  তৌকীর আহমেদ বলেন, স্বাধীনতার ৫০ বছর উদযাপনের  দিনে  সিনেমাটি মুক্তি পাওয়া অবশ্যই বড় ব্যাপার। পরিচালক হিসেবে সিনেমাটি আমার কাছে এ কারণে স্মরণীয় হয়ে থাকবে। ‘স্ফুলিঙ্গ’ মুক্তি পেল করোনাকালে।  সব নির্মাতার মতোই  দর্শকদের জন্যই আমি সিনেমা বানাই। সবার মতো আমিও চাই আমার সিনেমাটি দর্শক দেখতে আসুক। স্বাস্থ্যবিধি মেনেই যেন দর্শকরা হলমুখী হবেন, সেই প্রত্যাশা করছি।

তৌকীর পরিচালিত ‘স্ফুলিঙ্গ’, করোনাকালেও প্রত্যাশা

তরুণদের ব্যান্ড সংগীত চর্চাকে কেন্দ্র করে ‘স্ফুলিঙ্গ’ সিনেমার গল্প গড়ে উঠেছে।  বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে তরুণ প্রজন্মের কাছে তুলে ধরতেই মূলত সিনেমাটি নির্মিত হয়েছে বলে জানালেন জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত  নির্মাতা তৌকীর আহমেদ। তিনি বলেন, এটি আমার সপ্তম ছবি। এর আগে ছয়টি ছবি নির্মাণ করে প্রশংসা পেয়েছি। ছবিটি দেখার পর ভালো লাগলে ভালো বলবেন, আর খারাপ লাগলে খারাপটাও বলবেন। প্রশংসার পাশাপাশি সমালোচনা নিতেও আমি প্রস্তুত।

স্বপ্নের বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের প্রযোজনায় ও অভি কথাচিত্রের পরিবেশনায় ‘স্ফুলিঙ্গ’ সিনেমাটিতে অভিনয় করেছেন পরিমনি, জাকিয়া বারী মম, মামুনুর রশীদ, আবুল হায়াত, শহিদুল আলম সাচ্চু, রওনক হাসান, শ্যামল মওলা প্রমুখ।

তৌকীর পরিচালিত ‘স্ফুলিঙ্গ’, করোনাকালেও প্রত্যাশা

রাজধানীর পান্থপথের স্টার সিনেপ্লেক্সে গত বুধবার সন্ধ্যায় আমন্ত্রিত অতিথিদের জন্য অনুষ্ঠিত হয়  ‘স্ফুলিঙ্গ’ সিনেমার প্রদর্শনী। উদ্বোধনী এ প্রদর্শনীতে উপস্থিত ছিলেন পরিচালক, অভিনয়শিল্পী, কলাকুশলীরা ও বিনোদন অঙ্গনের সুধীজনেরা। 
উদ্বোধনী প্রদর্শনীতে উপস্থিত থাকতে না পেরে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নিজের আক্ষেপ প্রকাশ করেছেন ছবির অন্যতম অভিনয়শিল্পী পরীমনি। ভারতের কলকাতা থেকে তিনি লিখেছেন, সকাল থেকে ভীষণ ইচ্ছে করছে পাখি হয়ে যেতে। ইশ্, কী দারুণ হতো ব্যাপারটা। পাখি হলে ঠিক সন্ধ্যার আগে আগে উড়াল দিতাম আমি। কোনো কিছুই আমাকে বেঁধে রাখতে পারত না। ঘণ্টাখানেক নীল আকাশে ডানা ঝাপটে টুপ করে হাজির হতাম আপনাদের মাঝে। স্ফুলিঙ্গর প্রিমিয়ারে! একসাথে সবাই মিলে দেখতাম আমাদের স্ফুলিঙ্গ টিমের এত মায়া, এত যত্নে বানানো গল্পটা।

সিনেমার আরেক অভিনেত্রী জাকিয়া বারী মম  বলেন, নতুন সিনেমা মুক্তি পাওয়া মানেই শিল্পী হিসেবে এক ধরনের উওেজনা ও ভালো লাগা কাজ করে। সবচেয়ে ভালো লাগছে স্বাধীনতার ৫০ বছর উদযাপনের দিন এটি মুক্তি পেল।  এটা মুক্তিযুদ্ধের ছবি, এটা করতে পেরে আমি মনে করি, একটি দায়িত্ব পালন করতে পেরেছি। তা ছাড়া তৌকীর আহমেদের মতো নির্মাতার সঙ্গে কাজের সুযোগ পাওয়াটা আমার জন্য গর্বের।

‘স্ফুলিঙ্গ’- এর মধ্য দিয়ে প্রথমবারের মতো কোনো সিনেমার কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন শ্যামল মওলা। এ নিয়ে ভীষণ রোমাঞ্চিত এই অভিনেতা। ইতিমধ্যে টিভি এবং ওটিটি প্ল্যাটফর্মগুলোতে তাঁর নানা দৈর্ঘ্যের কাজ তরুণদের কাছে তাঁকে গ্রহণযোগ্য করে তুলেছে। এই সিনেমার মাধ্যমে এক রোমান্টিক ভাবমূর্তি নিয়ে পর্দায় এসেছেন তিনি। শ্যামল মওলা বলেন, ছবিটিতে অভিনয় করে বেশ আনন্দ পেয়েছি। আমার বিশ্বাস, ছবিটি দেখে দর্শকও আনন্দ পাবেন।
নির্মাতা তৌকীর আহমেদের পরিচালনায় এর  আগে মুক্তি পাওয়া ছবিগুলো হলো- জয়যাত্রা, রূপকথার গল্প, দারুচিনি দ্বীপ, অজ্ঞাতনামা, হালদা ও ফাগুন হাওয়া।  প্রথম ছবি ‘জয়যাত্রা’ নির্মাণ করে তিনি শ্রেষ্ঠ পরিচালক ও শ্রেষ্ঠ চিত্রনাট্যকার হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর