আজ ৩১শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৪ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

আইন মানেন না তালা-পাটকেলঘাটা সার্কেল হুমায়ুন কবির ॥ প্রতিদিনের নির্যাতনের খড়ক নিন্ম আয়ের মানুষের উপর

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি : আইন মানেন না সাতক্ষীরা জেলার তালা উপজেলার পুলিশের সার্কেল এসপি হুমায়ুন কবির । কথায় কথায় সাধারন মানুষকে বেদম লাঠি পেটা করে নিজের ক্ষমতা জাহির করছেন। তার হাত থেকে রেহায় পাচ্ছে না গনমাধ্যম কর্মীসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় কাজে বাইরে আসা অসহায় খেঁটে খাওয়া মানুষ। লগডাউনের শুরু থেকে বেপরোয়া হয়ে উঠেছে এ সহকারী পুলিশ কর্মকর্তা। পাটকেলঘাটা থানার সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অতর্কিত ভাবে হামলা চালিয়ে নিন্ম আয়ের মানুষের উপর লাঠি পেটা অভ্যাহত রেকেছেন। ইতিমধ্যে একজন ইটভাটা ম্যানেজারকে পিটিয়ে তার ডান হাত ভেঙ্গে দিয়েছে। তিনি বয়োবৃদ্ধ হওয়ায় তীব্র যন্ত্রনায় বিছানায় কাতর। ১৭ এপ্রিল সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত চরমভাবে ৬ জন গনমাধ্যমকর্মীকে হেনস্তা করেছেন।

ভূক্তভোগীদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে এবং প্রত্যক্ষর্শীদের ভাষ্যমতে শনিবার দুপুর ৩টার দিকে পাটকেলঘাটার স্থানতরিত শবজির বাজার পাটকেলঘাটার বলখেলার মাঠে হামলা চালাতে শুরু করে। এসময় বাজারে হরেকরকম শাঁক-শবজি ও নিত্যপ্রয়োজনীয় কাঁচাবাজারের বেশ কয়েকটি দেকানে নিজেই পা দিয়ে লাথি মেরে বিভিন্ন তরি-তরকারি ঝুঁড়ি থেকে ফেলে দেয়। এ সময় বাজারে উপস্থিত কয়েকজন গনমাধ্যমকর্মী এগিয়ে গেলে এএসপি হুমায়ুন কবির তার এই দৃশ্য ছবি তোলা হয়েছে দাবি করে দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন পত্রিকার সাতক্ষীরার সাংবাদিক মনিরুল ইসলাম মনির হাতে থাকা মোবাইল ফোনটি কোন প্রকার কথা ছাড়াই ফোনটি ছিনিয়ে নেয়। এসময় স্থানীয় অন্যগনমাধ্যমকর্মীরা এগিয়ে আসলে সহকারী পুলিশ সুপার হুমায়ুন কবির সাংবাদিকদের উদ্দেশ্য করে বলেন “আমি কে জানেন” এমন দম্ভক্তি ছুড়ে দিয়ে নিজেকে জাহির করার চেষ্টা করেন। মোবাইল নেওয়ার বিষয়টি তাৎক্ষনাৎ সাতক্ষীরা জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমানকে জানানো হয়। এ ঘটনার পূর্বে ২টার দিকে পাটকেলঘাটা ওভারব্রীজের ওপর জাতীয় দৈনিক আজকালের খবর পত্রিকার সাতক্ষীরা প্রতিনিধি তৌহিদুজ্জামানকে গতিরোধ কওে তার ব্যবহৃত মোটরসাইকেলের দুই চাকায় ভোমর ফুঁটিয়ে চাবি নিয়ে নেয়। নিজেকে সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে বৈধকাগজপত্র থাকা সত্বেও কেন এমন ব্যবহার করা হচ্ছে জানতে চাইলে পুলিশসুপার অকথ্যভাষায় গালিগালাজ করেছে বলে জানিয়েছেন।
এবিষয়ে সাংবাদিক তৈহিদ জানিয়েছেন আইন মানেন না এএসপি হুমায়ন কবির। বৈধ কাগজপত্রসহ জাবদীয় নিয়ম মেনে পেষাগত রাস্তায় বের হয়ে আইনের রক্ষকের হাতে বে-আইন কর্মকান্ডের স্বীকার হয়েছি।

এদিকে ওই ঘটনার পরেই দুপুর ২টা ৩০ মিনিটের দিকে কুমিরা কদমতলা মোড়ে জনতার মিছিল পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার ইব্্রাহিম খলিলকে তার মটরসাইকেলের গতিরোধ করে। সাংবাদিক পরিচয় পেয়ে আরও ক্ষিপ্ত হয়ে এএসপি হুমায়ুন কবির সাংবাদিক ইব্রাহিম খলিলের কোমরে লাথি মারেন। মাটিতে লুটিয়ে পড়লে তাকে বেদম মারপিটক করে মটরসাইকেলটি নিয়ে নেয়। এঘটনার পরপরি দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিনের সাংবাদিক মনিরুল ইসলাম মনি দাতপুর থেকে পাটকেলঘাটায় নিজ বাড়ীতে ফেরার পথে কুমিরায় পৌছালে তাকেও গতিরোধ করে বৈধ কাগজপত্র থাকা সত্বেও তার মটরসাইকেলটির চাকায় লোহার হুক ঢুকিয়ে ট্যায়ার সম্পূর্ন অকেজো করে দেয় সাথে থাকা কন্সটেবল সুজন ও তার বডিগার্ড। এসময় জরুরি ঔষধ কিনতে আসা অভয়তলা গ্রামের ঈদ্রিসকে মটরসাইকেলের গতিরোধ করে চাকায় ভোমর ফুটানোসহ মারপিট করা হয়। ডুমুরিয়া থেকে জরুরী কৃষি বীজ সরবরাহকরে খালি মাহিন্দ্র নিয়ে ফেরার পথে ঘটনাস্থলে তৈইলকুপি গ্রামের মাহবুবের গতিরোধ করে থ্রি হুইলারের সব চাকায় ভোমর ফুটিয়ে দেওয়া হয়। ক্ষতিগ্রস্থ্য মাহবুব জানায় পরিবহনের সামনে জরুরী বীজ সরবরাহ কাজে নিয়োজিত ব্যানার থাকলেও শেষ রক্ষা হয়নি। এসময় কমপক্ষে আরও অনন্ত পা চালিত ভ্যান ও মটরসাইকেলসহ ১০ থেকে ১৫টি যানবাহনের চাকার একাধিকস্থানে ভোমর ফুঁটিয়ে অকেজো করে দেওয়া হয়। সাথে মারপিট করে সাধারন পথচারিদেও আতংকিত করে তুলেন। এঘটার কিছুক্ষনের মধ্যে ওই স্থান ত্যাগ করে এএসপি হুমায়ুন কবির পাটকেলঘাটা এ্যাসিল্যান্ড অফিসের সামনে দাঁড়িয়ে থাকা পাটকেলঘাটা প্রেসক্লাবের সভাপতি শেখ জহুরুল হক ও দৈনিক কালের চিত্র পত্রিকার সাংবাদিক শাহিন বিশ্বাসের পরিচয় পেয়েও তাদের মটরসাইকেলের ট্যায়ার লোহার শিক দিয়ে ছিদ্র করে অকেজো করে দেওয়া হয়।

এঘটনার এক সপ্তাহ পূর্বে কুমিরা এমএনবি ব্রিকস্ এর ম্যানেজার গিয়াসউদ্দিন(৫৫) রাত পনে ৮টার দিকে তার গ্রামের বাড়ী জুসখোলার ফেরার পথে পাটকেলঘাটা ওভারব্রীজ সংলগ্ন এলাকায় পৌছাতেই তারউপর লাঠি চার্জ শুরু করে। এসময় হাত দিয়ে নিজেকে রক্ষা করতে গেলে তার শরিরের ডান হাত ভেঙ্গে যায়। এসময় তার সাথে থাকা ফুটবল খেলোয়ার আসাদকেও পিটিয়ে আহত করে। সহকারী পুলিশ সুপার হুমায়ুন কবিরের বিরুদ্ধে সাধারন মানুষের উপর নানাবিধ নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়াগেছে। এদের মধ্যে ক্ষতিগ্রস্থ্য কলাপোতা গ্রামের কদমতলা এলাকার চা দোকানি লিটন জানান ১৬ এপ্রিল সন্ধ্যায় তার ১৪ তারিখ থেকে বন্ধ চায়ের দোকানের চুলাভাংচুর করে মূল্যবান যন্ত্রপাতি তুলি নিয়ে গেছে। চা দোকানদার লিটন আক্ষেপ করে বলেন বন্ধকৃত চায়ের দোকান ভাংচুর করে মালামাল নিয়ে গেলেও পাশ্বের চলমান চায়ের দোকানে কেন অভিযান হয়নি। এঘটনায় তিনি বিচারচেয়ে পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। এমন ঘটনা পাটকেলঘাটা বাজারের চা দোকানি আব্দুল হাকিম ও শেখ অজিয়ার রহমানের দোকানে হামলা করে বেধড়ক মারপিট করা সহ চায়ের কেটলি নিয়ে যাওয়ারও অভিযোগ রয়েছে।

এদিকে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপারের নির্দেশে পাটকেলঘাটা থানার ওসি ওহিদ মোর্শেদ স্থানীয় সাংবাদিকদের মাধ্যমে বাংলাদেশ প্রতিদিন পত্রিকার সাংবাদিক মনিরুল ইসলাম মনির মোবাইলটি ফেরত দেন। এসময় উপস্থিত ওসির মোবাইল ফোনে ফোন করে এএসপি হুমায়ুন কবির সাংবাদিক মনিরুল ইসলাম মনির সাথে কথা বলেন এবং অনাকাক্ষিত ভাবে ভূল বশত হয়েগেছে বলে দুঃখ প্রকাশ করে সার্কেল অফিসে তার সাথে চা খাওয়ার দাওয়াত দেন।

এদিকে ভূক্তভোগীরা পুলিশ কর্মকর্তা হুমায়ুন কবিরের এহেন কর্মকান্ডের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করে পুলিশ

নামায ও ইফতারের সময়সূচীঃ

সেহরির শেষ সময় - ভোর ৩:৫৭ পূর্বাহ্ণ
ইফতার শুরু - সন্ধ্যা ৬:৩৯ অপরাহ্ণ
  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৪:০২ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:০২ অপরাহ্ণ
  • ৪:৩৬ অপরাহ্ণ
  • ৬:৩৯ অপরাহ্ণ
  • ৮:০১ অপরাহ্ণ
  • ৫:২২ পূর্বাহ্ণ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর