আজ ১৪ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৯শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সাতক্ষীরায় তরমুজের মূল্য উদ্ধগতি, নেই প্রশাসনের নজরদারি

সাতক্ষীরায় তরমুজের মূল্য উদ্ধগতি নেই প্রশাসনের নজরদারি

জাহাঙ্গীর হোসেন ঃ
সাতক্ষীরায় তরমুজের মূল্য আকাশ ছোঁয়া। প্রশাসন নির্বিকার। প্রচণ্ড গরম ও রমজান কে পুঁজি করে কিছু অসাধু ব্যবসায়ীরা সেন্ডিগেটের মাধ্যমে এই সুস্বাদু তরমুজের দাম সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষের ক্রয় ক্ষমতার বাইরে নিয়ে গেছে। একটা তরমুজ বিক্রয় হচ্ছে ৪০০ থেকে ৫০০ টাকা এই তরমুজ কেনা তো দুরের কথা দরাদাম করতে ও সাহস হয় না সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষের। ছেলে মেয়েদের চাহিদা মেটানোর জন্য তরমুজ কেনা তাদের কাছে দুঃসাধ্য । আবার এই তরমুজ আইন বহির্ভূতভাবে ওজনে বিক্রয় হচ্ছে। তা দন্ডনীয় অপরাধ। ব্যবসায়ীরা এই তরমুজ পিচ আকারে ক্রয় করলে ও বিক্রয় করার সময় তা ওজনে বিক্রয় করছে । ওজনে বিক্রয় করলে ও কি হবে তরমুজ ক্রয় করতে হবে ব্যবসায়ীদের ইচ্ছা মত কারণ আপনার ক্ষমতা অনুযায়ী নির্দিষ্ট পরিমান ওজন তরমুজ ক্রয় করার কোন সুযোগ নেই । ওজনে ক্রয় করলে ও আপনার কে একটা পিচই ওজন করে নিতে হবে । যদি আপনার সেই ওজন পরিমাণ পুঁজি না থাকে তাহলে আপনার আর তরমুজ ক্রয় করা হলো না । এই তরমুজের মূল্য আবার আকাশ ছোঁয়া প্রতি কেজির দাম ৪০ থেকে ৫০ টাকা । প্রকৃত মূল্য যা হওয়ার কথা তার চেয়ে কয়েক গুণ বাড়তি দামে সাতক্ষীরাতেই তরমুজ বিক্রয় হচ্ছে । কেজিতে বিক্রয় হলে কি হবে কোন ব্যক্তি যদি তার বাচ্চাদের মুখে এতটুকু হাসি দেখার জন্য তার সাধ্য মত দুই এক কেজি কিনতে চায় সে ক্ষেত্রে কোন সুযোগ নেই । তরমুজ কিনতে হলে একটা পিচ ওজন করে নিতে হবে তাই সেটার মূল্য যাই হোক। অতএব এই সাধারণ মানুষের আর ৪০০থেকে ৫০০ টাকা দিয়ে আর তরমুজ কেনা হলো না। আর দেখা হলো না তা বাচ্চাদের মুখের একটু হাসি। ইতিপূর্বে বাংলাদেশর বিভিন্ন জেলায় ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে অভিযান চালিয়ে তরমুজ ওজনে এবং বেশি দামে বিক্রয় করার জন্য অসাধু ব্যবসায়ীদের কে বিভিন্ন অংকের টাকা জরিমানা করা হচ্ছে। সাতক্ষীরা বাসির দাবি সাতক্ষীরাতে ও যে সব অসাধু তরমুজ ব্যবসায়ী আছে তাদের কে ও খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনা হোক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর