আজ ৯ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৩শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সাতক্ষীরার কলারোয়া থানায় ছাত্রলীগ নেতা রেজার বিরুদ্ধে জিডি



নিজস্ব প্রতিবেদক: সাতক্ষীরা জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি রেজাউল ইসলাম রেজার বিরুদ্ধে এবার অত্যাচার, নির্যাতন ও মুখে এসিড মেরে ঝলসে দেওয়ার হুমকির অভিযোগ তুলেছেন এক স্কুল শিক্ষিকা। এ ঘটনায় স্কুল শিক্ষিকা মেহেজাবিন সুলতানা কলারোয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি মেহেজাবিন সুলতানা (২৫) কলারোয়া উপজেলার বিক্রমপুর গ্রামের মৃত. রবিউল হোসেন বিশ্বাসের মেয়ে ও উপজেলার চন্দনপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক। ছাত্রলীগ নেতা রেজাউল ইসলাম রেজা (৩০) সাতক্ষীরা সদরের আলিপুর গ্রামের খবির উদ্দীন গাজীর ছেলে।স্কুল শিক্ষিকা মেহেজাবিন সুলতানা বলেন, প্রেমের সম্পর্কের জেরে ২০২০ সালের ১৮ নভেম্বর আমরা গোপনে বিয়ে করি। তবে বিয়ের বিষয়টি গোপন রাখতে বলে রেজা। এরপর থেকেই আমার উপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন শুরু করে। ডিভোর্স দেওয়ার জন্য চাপ প্রয়োগ করতে থাকে। আমাকে ও আমার পরিবারকে হুমকি দিতে থাকে। বাধ্য হয়ে রোববার (২ মে) আমি তাকে ডিভোর্স করি। এরপরও নানাভাবে হুমকি ও ভয়ভীতি দেখাচ্ছে। নিরাপত্তার জন্য মঙ্গলবার (৪ মে) রাতে কলারোয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছি। বিষয়ে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি রেজাউল ইসলাম রেজা বলেন, আমি তাকে বিয়ে করেছি সংসার করার জন্য। কিন্তু তাকে বাড়িতে আনতে ব্যর্থ হয়েছি। সে বাড়িতে না এসে নানাভাবে আমাকে হয়রানি করার চেষ্টা করছে। আগামী সম্মেলনে আমি জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী হওয়ায় আমার রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ তাকে দিয়ে এসব করাচ্ছেন।তিনি আরও বলেন, স্ত্রী যদি মধ্যরাতে অন্যের মোটরসাইকেলে ঘুরে বেড়ায় তবে তাকে শাসন করা মানে নির্যাতন করা নয়। অন্যের সঙ্গে ঘুরে বেড়ানো নিষেধ করলেও সে মানেনি। তখন হয়তো তাকে দুই একটি চড় থাপ্পড় দিয়েছি। আমি তাকে নিয়েই সংসার করতে চাই। তবে সে চায় না। আমার রাজনৈতিক প্রতিপক্ষের কাছ থেকে টাকা নিয়ে এসব করছে, বিভিন্ন জায়গায় অভিযোগ দিচ্ছে। থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর খায়রুল কবীর বলেন, মেয়েটি তার স্বামীকে ডিভোর্স দিয়েছে। এরপরও তার স্বামী তাকে এসিড মারার হুমকি দিচ্ছে বলে মেয়েটি জানিয়েছে। এরপর ঘটনাটি সাধারণ ডায়েরি হিসেবে নথিভুক্ত করে আদালতে পাঠানো হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর