আজ ৯ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৩শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সাতক্ষীরায় অস্ত্র মামলায় রিমা- শেষে জেল হাজতে প্রতারক বাদশা মিয়া

অনলাইন ডেস্ক :  ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ও প্রতারণার মামলায় রোববার রিমা- শুনানী
পত্রদূত রিপোর্ট: সাতক্ষীরার বহুল আলোচিত প্রতারক বাদশা মিয়াকে তিন দিনের রিমা- শেষে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া তার বিরুদ্ধে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের দায়েরকৃত ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ও প্রতারণার মামলায় যথাক্রমে ৭ দিন ও ১০ দিনের পৃথক রিমা- শুনানীর জন্য জন্য রোববার দিন ধার্য করা হয়েছে

সাতক্ষীরা জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইয়াছিন আলম চৌধুরী জানান, পহেলা মে শনিবার ভোরে সাতক্ষীরার বহুল আলোচিত কথিত ডাক্তার শহরের পলাশপোলের বাদশা মিয়াকে বাইপাস সড়ক সংলগ্ন শফিকুল ইসলামের ফাস্ট ফুডের দোকানের পাশ থেকে একটি পিস্তল ও দু’রাউ- গুলিসহ গ্রেপ্তার করা হয়। এ ঘটনায় গোয়েন্দা পুলিশের উপপরিদর্শক মহসিন আলী তরফদার বাদি হয়ে ওই দিনই সদর থানায় অস্ত্র আইনে মামলা (জিআর-২৯৯/২১ সদর) দায়ের করে তদন্তকারি কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক আরিফুর রহমান ফারাজি তাকে জিজ্ঞাবাদের জন্য আদালতে সাত দিনের রিমা- আবেদন করেন। পরদিন শুনানী শেষে মুখ্য বিচারিক হাকিম মো: হুমায়ুন কবীর তার তিন দিনের রিমা- মঞ্জুর করেন। পরদিন তাকে জেলখানা থেকে তাদের কার্যালয়ে নিয়ে আসা হয়। রিমা- শুনানী শেষে তাকে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়। জিজ্ঞাসাবাদে সে চাঞ্চল্যকর তথ্য দিয়েছে।

ইয়াছিন আলম চৌধুরী আরো জানান, ৩০ এপ্রিল বৃহস্পতিবার কামাননগরের শহীদুলের দোকান থেকে বাদশা এর ব্যবহৃত দু’টি নকল সীল, প্রধানমন্ত্রীর একান্ত সচিব লেখা একটি নকল নোট প্যাড, খুলনা-০২ আসনের সংসদ সদস্যের নকল ডিও লেটার/প্যাডে ওসি দেলোয়ার হুসেনের নামে লিখিত মিথ্যা অভিযোগ সহ বিভিন্ন প্রকার নিয়োগপত্র এবং জমাজমি সংক্রান্ত কাগজ-পত্র, ওসি দেলোয়ার হুসেনের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলনের লিখিত কপি উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় শনিবার গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পরিদর্শক মোস্তফা আলম বাদি হয়ে বাদশা মিয়াসহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে প্রতারণা ও জালিয়াতির মামলা(জিআর-৩০০/২১ সদর) দায়ের করেন। মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের উপপরিদর্শক বাবুল আক্তার তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে ১০ দিনের রিমা- আবেদন করেন। যা শুনানীর জন্য আগামি রোববার দিন ধার্য আছে। এছাড়া পচিয় গোপন রেখে অবৈধ আর্থিক লাভের উদ্দেশ্যে প্রতারণাসহ মানহানিকর তথ্য ইলেকট্রিক ডিভাইসের মাধ্যমে প্রচারের অভিযোগে ২ মে বাদশা মিয়ার বিরুদ্ধে গোয়েন্দা পুলিশের উপপরিদর্শক আরিফুর রহমান ফারাজি বাদি হয়ে সদর থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা(জিআর-৩০৬/২১ সদর) দায়ের করেন। মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পরিদর্শক মো: জিয়াউর রহমান জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ওইদিন আদালতে সাত দিনের রিমা- আবেদন করেন। বিচারক মো: হুমায়ুন কবীর শুনানীর জন্য আগামি রোববার দিন ধার্য করেন।

প্রসঙ্গত: পহেলা মে শনিবার বিকেল তিনটায় সাতক্ষীরা পুলিশ সুপার মো: মোস্তাফিজুর রহমান তার কার্যারয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে গ্রেপ্তারকৃত বাদশা মিয়ার প্রতারণার বিভিন্ন কাহিনী তুলে ধরেন। তিনি বলেন, প্রতারণাসহ হাফ ডজন মামলার আসামী বাদশা’র বিরুদ্ধে গোয়েন্দা পুলিশের উপপরিদর্শক মহসিন আলী বাদি হয়ে শনিবার অস্ত্র আইনে একটি মামলা দায়ের করেছেন। এ মামলায় বাদশা মিয়ার সহযোগী শহরের ইটাগাছার সাগর হোসেনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ছাড়াও তার বিরুদ্ধে আরও মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর