আজ ২৯শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৩ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

গুলশান-বনানীর ম্যাসাজ ও পার্লারে তালা, অনৈতিক কাজের অভিযোগে গা ঢাকা

বেশ কয়েকদিন থেকেই আলোচনায় কথিত মডেল ফারিয়া মাহবুব পিয়াসা ও মরিয়ম আক্তার মৌ। তাদের বিরুদ্ধে অনৈতিক বিভিন্ন কাজে জড়িত থাকার অভিযোগ আনা হয়েছে। তবে তাদের গ্রেপ্তারের পর থেকে রাজধানীর গুলশান-বনানীর অধিকাংশ ম্যাসাজ ও বিউটি পার্লার বন্ধ।

এসব ম্যাসাজ সেন্টার ও বিউটি পার্লারে যারা কাজ করেন তাদের অধিকাংশই নারী। তারা পুরুষদের শরীর ম্যাসাজসহ নানা অনৈতিক কাজের জড়িত বলে জানা গেছে।

গুলশান-বনানী এলাকার ম্যাসাজ ও বিউটি পার্লারের তালিকা এখন গোয়েন্দা সংস্থার হাতে। এর মধ্যে কেবল গুলশানেই এমন ৩০টি প্রতিষ্ঠানের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। যার ১০টিতে অনৈতিক কাজ হয়। এসব অনৈতিক কাজে থাই নাগরিকসহ বিদেশিরাও জড়িত বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

জানা যায়, গত কয়েকদিন ধরেই এসব প্রতিষ্ঠানে তালা ঝুলছে। ওই ভবনগুলোর নিরাপত্তারক্ষীরা বলছেন, লকডাউনের কারণে প্রতিষ্ঠানের মূল গেট বন্ধ থাকে। তবে ভিতরে ঠিকই তাদের কাজ চলত। তবে এক সপ্তাহ ধরে প্রতিষ্ঠানটির মালিক, কর্মচারী ও সেবা গ্রহীতা কেউই আসছে না।

কেবল ম্যাসাজ স্পা সেন্টার ও বিউটি পার্লারই নয়, ভয়ে প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে গা-ঢাকা দিয়েছে অনেক পার্টি হাউস ও সিসা লাউঞ্জের নিয়ন্ত্রকরা।

গুলশান বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) মো. আসাদুজ্জামান গণমাধ্যমকে বলেন, ম্যাসাজ পার্লার, বিউটি পার্লার, সিসা লাউঞ্জ বা পার্টি হাউস যেই নামই আসুক না কেন, কোনো অনৈতিক বা অপরাধমূলক কাজের খবর পেলে আমার সঙ্গে সঙ্গে আইনানুগ ব্যবস্থা নেব। যারাই জড়িত থাকুক কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। অভিযানের মাধ্যমে অনৈতিক কার্যক্রম বন্ধ ও সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     এই বিভাগের আরও খবর