আজ ৮ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৪শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

বড়দল আলিম মাদ্রাসায় নিয়োগ প্রক্রিয়ায় দুর্নীতির অভিযোগ

বড়দল (আশাশুনি) প্রতিনিধি: আশাশুনি উপজেলার বড়দল দারুছছুন্নাহ আলিম মাদ্রাসায় ৩টি পদে দুর্নীতি, অনিয়ম, স্বেচ্ছাচারিতা ও মোটা অংকের টাকার বিনিময় ও নিজ সন্তানকে চাকরি দেওয়ার পায়তারা চালাচ্ছেন এমন অভিযোগে অত্র মাদ্রাসার সুপার এস এম আহসানউল্লাহর  বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ গর্ভানিং বডির সদস্য, অভিভাবক সদস্য ও এলাকাকাবাসী জেলা ও উপজেলা শিক্ষা অফিস  সহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। 

লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে জানা যায় সম্প্রতি মাদ্রাসার কর্তৃপক্ষ অফিসসহকারী (কম্পিউটার), নিরাপত্তাকর্মী ও আয়া পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের আগে থেকেই সুপার এস এম আহসানউল্লাহ ও মাদ্রাসার পরিচালনা কমিটির সভাপতি সাবেক অধ্যক্ষ মোহাম্মদ আলী  প্রার্থীদের সাথে দেন দরবার শুরু করেন। গুঞ্জণ উঠছে সুপার নিজ সন্তানকে নিয়োগ দেওয়ার জন্য মাদ্রাসার নামে এক বিঘা জমি ওয়াফ্ফ করে দিবেন মর্মে অঙ্গিকার করছেন।নিরাপত্তা কর্মীর জন্য ৬ লক্ষ ৫০ হাজার, আয়া পদের জন্য ৫ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা চুক্তি সম্পন্ন করে নিয়োগ কার্যক্রম সম্পন্ন করার জন্য গর্ভানিং বডির সদস্যদের বাড়ি বাড়ি ধন্যা দিচ্ছেন। উল্লেখ থাকে যে, অত্র মাদ্রাসার, সুপারের পরিবারের ৬জন সদস্য কর্মরত আছেন। নিজে সুপার/প্রতিষ্ঠান প্রধান, স্ত্রী এবতেদায়ী প্রধান, ভাগনে জামাই সহকারী অধ্যক্ষ, নিজের জামাই সহকারী মৌলভী, চাচা (মৃত) সাবেক নিরাপত্তাকর্মী, এখন ছেলেকেও নিয়োগ দিতে চাচ্ছেন।

এ বিষয়ে সুপার এস এম আহসানউল্লাহর মুঠোফোনে একাধিক বার কল দিলেও তিনি ফোন ধরেননি।

এমতাবস্থায় স্বচ্ছ নিয়োগ পরীক্ষার স্বার্থে ও এলাকার যোগ্য প্রার্থীরা যাতে আবেদন করতে পারে তার জন্য পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করার জন্য এই মুহুর্তে নিয়োগ কার্যক্রম বন্ধের যাবতীয় ব্যবস্থা গ্রহন করতে যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে আসু হস্তক্ষেপ কামনা করছেন গর্ভানিং বডির সদস্য, অভিভাবক সদস্য ও এলাকাবাসী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর