আজ ৮ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৪শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ভোমরা ইমিগ্রেশন দিয়ে ভারত-বাংলাদেশ পাসপোর্ট যাত্রীদের গমনাগমন বৃদ্ধি পাচ্ছে

এম জিয়াউল ইসলাম জিয়া, ভোমরা(সাতক্ষীরা): বৈশ্বিক (কোভিড-১৯) করোনা ভাইরাস সংক্রমন প্রতিরোধ ব্যবস্থা অনেকটা উন্নতি হওয়ায় গত ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ তারিখ থেকে বাংলাদেশ-ভারত পাসপোর্ট যাত্রীদের গমনাগমনের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে ভোমরা ইমিগ্রেশন চেকপোষ্ট রুট। ভারত-বাংলাদেশ পাসপোর্টধারী নাগরিকদের গমনাগমন দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। ভারতীয় পাসপোর্টধারী নাগরিকদের আগমন অনেকাংশে বৃদ্ধি পেলেও বাংলাদেশী পাসপোর্টধারী নাগরিকদের ভারত গমনে একেবারেই কম। উভয় দেশের ইমিগ্রেশন চেকপোষ্ট কার্যক্রম চালু হওয়ায় ৪ অক্টোবর ২০২১ সোমবার সকালে ভারত থেকে ১৩ জন, ৫ অক্টোবর ২০২১ তারিখে ৫ জন, ৬ অক্টোবর ২০২১ তারিখে ১৯ জন, ৭ অক্টোবর ২০২১ তারিখে ১৩ জন এবং ৮ অক্টোবর ২০২১ তারিখে ২৬ জন পাসপোর্টধারী ভারতীয় নাগরিক ভোমরা ইমিগ্রেশন দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে। তবে শুক্রবার (৮ অক্টোবর ২০২১) ২ জন পাসপোর্টধারী বাংলাদেশী নাগরিক ভারতে প্রবেশ করেছে। এদিকে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের পর্যটকদের জন্য ভ্রমন ভিসা চালু করেছে ভারত। আগামী ১৫ অক্টোবর ২০২১ থেকে পর্যটকরা চার্টার্ড ফ্লাইটে ভারতে প্রবেশ করতে পারবে। বৃহস্পতিবার (৭ অক্টোবর ২০২১) ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি থেকে এই তথ্য জানা গেছে। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আগামী ১৫ অক্টোবর থেকে ভারত নতুন করে ভ্রমন ভিসা চালু করবে। তবে পর্যটকদের চার্টার্ড ফ্লাইটে ভারতে প্রবেশ করতে হবে এবং ১৫ অক্টোবর থেকে সাধারন ফ্লাইট চালু হবে। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, পর্যটকদের করোনার সকল স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। উল্লেখ্য, গত বছরের ১১ মার্চ ২০২০ করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে বিদেশীদের যাবতীয় ভিসা বাতিল করে ভারত সরকার। শুধু কূটনৈতিক, অফিসিয়াল, জাতিসংঘ ও আন্তর্জাতিক সংস্থা, চাকরী ও প্রকল্প ভিসা চালু ছিল। এছাড়া বাংলাদেশের ভারতীয় হাই কমিশন ঘোষিত বিজ্ঞপ্তি থেকে জানা যায়, ব্যক্তি পর্যটকরা আগামী ১৫ নভেম্বর ২০২১ বা তার পরেই ভ্রমন করতে পারবেন। এদিকে আরটিপিসিআর কর্তৃক করোনা নেগেটিভ সনদপত্র জটিলতায় চরম দূর্ভোগে রয়েছে বাংলাদেশী পাসপোর্টধারী নাগরিকরা। এ ব্যাপারে সাতক্ষীরা সিভিল সার্জন ডাক্তার হুসাইন শাফায়েত এর নিকট জানতে চাইলে তিনি জানান, সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালের আরপিপিসিআর ল্যাব থেকে করোনা ভাইরাস পরীক্ষার সনদপত্র দেওয়া হচ্ছে। ফলে দেশীয় পাসপোর্ট যাত্রীরা অনায়াসে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতাল আরটিপিসিআর ল্যাব থেকে করোনা নেগেটিভ সনদপত্র গ্রহণ করতে পারে। ভোমরা ইমিগ্রেশন চেকপোস্টে করোনা পরীক্ষা কেন্দ্রের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা আবুল কাশেম জানান, পাসপোর্ট যাত্রীদের যেকোন স্থানের আরটিপিসিআর ল্যাব থেকে ৭২ ঘন্টার করোনা নেগেটিভ সনদপত্র পরীক্ষা-নীরিক্ষা করে হেলথ ডিক্লারেশন ফর্ম পূরণ করার পর পাসপোর্ট যাত্রীদের ইমিগ্রেশন অফিসে পাঠানো হয়। ভোমরা ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের ভারপ্রাপ্ত কর্মমর্তা(এসআই) জাহাঙ্গীর হোসেন খান জানান, আন্তঃমন্ত্রণালয়ের নির্দেশনায় ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে ভোমরা ইমিগ্রেশন কার্যক্রম চালু করা হয়। তবে ৪ অক্টোবর ২০২১ তারিখ থেকে ভারত-বাংলাদেশ পাসপোর্টধারী নাগরিকদের গমনাগমন শুরু হয়। তিনি আরো জানান, ইমিগ্রেশন কার্যক্রম চালু হওয়ার পর ভারতীয় পাসপোর্টধারী নাগরিকদের আগমন সংখ্যা বাড়লেও বাংলাদেশী পাসপোর্টধারী নাগরিকদের গমন সংখ্যা একেবারেই কম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর