আজ ৮ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৪শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

কয়রায় গ্রীষ্মকালীন টমেটোর মাঠ দিবসে এমপি বাবু বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকার কৃষক বান্ধব সরকার

কয়রা(খুলনা) প্রতিনিধি: খুলনা-৬ কয়রা পাইকগাছার সংসদ সদস্য আলহাজ¦ মোঃ আকতারুজ্জামান বাবু বলেছেন, কৃষিবিদদের সামগ্রিক উন্নয়নে বঙ্গবন্ধুর আমল থেকে যে স্বপ্নযাত্রা শুরু হয়েছিল তারই ধারাবাহিকতায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কৃষিবিদ ও কৃষকদের নজিরবিহীন মূল্যায়ন করেন। শেখ হাসিনার সরকার কৃষিবান্ধব সরকার। এ দেশের দরিদ্র কৃষকদের কথা চিন্তা করে শেখ হাসিনার সরকার ভর্তূকি দিয়ে কৃষি উপকরণ, কীটনাশক এবং কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে বীজ, কীটনাশক ও সার দেওয়ার মত মহতি উদ্যোগ গ্রহন করেছেন। যা এর আগের কোন সরকাই গ্রহন করেনি। শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকারের সহযোগিতা ও আপনাদের অক্লান্ত পরিশ্রমের কারনে বাংলাদেশ আজ খাদ্য উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণ। কৃষিবিদরা শুধু কৃষির উন্নয়নে ভুমিকা রাখলে হবে না, কৃষিবান্ধব সরকারের অভীষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছানোর ক্ষেত্রে রাজনৈতিক সচেতন মানসিকতার বহিঃপ্রকাশ শক্তিশালীভাবে ঘটাতে হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা থাকলে কৃষি ও কৃষিবিদ বান্ধব সরকার থাকবে। তা না হলে কনসার্টে কৃষকদের গুলি করার মত ঘটনা ঘটবে। উপেক্ষিত হওয়ার মত পরিস্থিতি আসবে। সোমবার (১১ই অক্টোবর) কয়রায় বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট উদ্ধাবিত হাইব্রিড টমেটোর উপর মাঠ দিবসে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। এসময় তিনি আরও বলেন, “ কৃষিনির্ভর বাংলাদেশে কৃষক বাঁচলে কৃষি বাঁচবে। আর কৃষি বাঁচলে দেশের অপ্রতিরোধ্য উন্নয়ন অগ্রযাত্রা এগিয়ে যাবে। সরকারের এত কিছু করার উদ্দেশ্য হচ্ছে যাতে করে আপনারা কম খরচে ফসল উৎপাদন করতে পারেন এবং এ দেশ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করে। ্আর সে লক্ষ্যে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পথ অনুসরণ করেই তার সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কৃষকসহ এদেশের আপামর মানুষের জীবনমান উন্নয়নে নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন। কৃষিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় ভূমিকা রাখতে পারে কৃষিবিদরা। কৃষিবিদদের যোগ্যতা ও পাণ্ডিত্য দেশের কল্যানে নিবেদিত হোক, এ প্রত্যাশা থাকবে। দেশে নানা রকম অনাকাক্সিক্ষত পরিস্থিতি সৃষ্টির একটি অপপ্রচেষ্টা আছে উল্লেখ করে এমপি বলেন, “ কেউ কেউ বাইরের টেলিভিশনকে ম্যানেজ করে বিগ বাজেটের ফিল্ম তৈরি করেছেন। এ পরিস্থিতিতে দেশত্ববোধের চেতনা ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে বাঁচিয়ে রাখতে শেখ হাসিনা সরকার যে অভীষ্ট লক্ষ্য নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে তা নিয়ে অপ্রচার ও ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে কৃষিবিদদের সোচ্চার ভূমিকা পালন করতে হবে। এর কোন বিকল্প নেই । কেউ নির্বাক থাকলে চলবে না। যেখানে অপ্রপ্রচার সেখানেই প্রতিরোধ করতে হবে। বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট সরেজমিন গবেষণা বিভাগ, খুলনার প্রধান বৈজ্ঞানিক কতর্মকর্তা ড. মোঃ হারুনর রশিদের সভাপতিত্বে ও বৈজ্ঞানিক সহকারি জাহিদ হাসানের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি জিএম মোহসিন রেজা, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অনিমেষ বিশ^াস, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান এ্যাডঃ কমলেস কুমার সানা, সহকারি কমিশনার ভুমি এম সাইফুল্লাহ, ককৃষিবিদ নুরুল ইসলাম, য়রা সদর ইউনিয়নের নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম বাহারুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামীলীগের প্রচার সম্পাদক এসএম হারুন অর রশীদ, সংস্কৃতি সম্পাদক প্রভাষক শাহাবাজ আলী, দক্ষিণ বেদকাশি নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান আছের আলী মোড়ল, আইসিডির সভাপতি আশিকুজ্জামান আশিক, ইউপি সদস্য লুৎফর রহমান ও কোহিনুর, আলম, কৃষকদের মধ্যে গোপাল সরদার সহ শত শত কৃষক কৃষানী,

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর